মঙ্গলবার ৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ ২০ নভেম্বর, ২০১৮ মঙ্গলবার

র‌্যাব পরিচয়ে তুলে নেওয়ার পর যুবক নিখোঁজ

বিশেরবাঁশী ডেস্ক: রাজধানীর মোহাম্মদপুর থেকে র‌্যাব পরিচয়ে তুলে নেওয়ার পর প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে নিখোঁজ রয়েছেন ইসমাইল হোসেন মানিক নামে এক যুবক। এ ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে মোহাম্মদপুর থানায় একটি জিডিও করা হয়েছে। পুলিশ ওই জিডি’র সূত্র ধরে মানিকের কোন সন্ধান করতে পারেনি। গতকাল বুধবার রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন (ত্রক্র্যাব) কার্যালয়ে তার সন্ধান চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে পরিবার।

তবে র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া শাখার পরিচালক কমান্ডার মুফতি মাহমুদ খান বলেন, মানিক নামে কাউকে তারা আটক বা গ্রেফতার করেনি। এমনকি এ ব্যাপারে র‌্যাবের কোন অভিযানও পরিচালিত হয়নি। তবে মানিক এলাকায় একজন চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ী। সাম্প্রতিক র‌্যাবের মাদক বিরোধী অভিযান থেকে রক্ষা পেতে অনেক মাদক ব্যবসায়ী গা ঢাকা দিয়েছেন। মানিক হয়তো সেভাবে গা ঢাকা দিয়ে থাকতে পারেন।

মানিকের বাবা জাতীয় শ্রমিক লীগের মোহাম্মদপুর-আদাবর থানা কমিটির উপদেস্টা মজনু মোল্লা সংবাদ সম্মেলনে বলেন, মোহাম্মদপুরের কাটাসুর চার নম্বর গলি থেকে ১৪ জুন রাত ১১টার দিকে তার ছেলেকে র‌্যাব পরিচয়ে সাদা পোশাকের একদল লোক একটি মাইক্রোবাসে তুলে নেয়। মাইক্রোবাসের উইন্ডশিল্ডের র‌্যাবের স্টিকার লাগানো ছিল। এ সময় এলাকায় র‌্যাবের সোর্স হিসাবে পরিচিত টিপু ও সাদ্দাম দলটির সঙ্গে ছিলেন। ওই রাতে পরিবারের সদস্যরা র‌্যাব-২ কার্যালয়ে গেলে তাদের জানানো হয়, মানিক নামে কাউকে র‌্যাব আটক করেনি। সেই থেকে মানিক নিখোঁজ রয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে মজনু মোল্লা পরে বলেন, টিপু ও সাদ্দামের সঙ্গে মানিকের পুরনো বিরোধ রয়েছে। এর জের ধরে তারা মানিককে আটক করিয়েছেন। এ ঘটনায় ১৫ জুন মোহাম্মদপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে মানিকের মা ইয়াসমিন বেগম জানান, তার তিন মেয়ে ও এক ছেলের মধ্যে মানিক সবার বড়। একমাত্র ছেলেকে ফিরে পেতে তিনি প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী ও আইজিপি’র সহায়তা চান।

মোহাম্মদপুর থানার ওসি জামাল উদ্দিন মীর বলেন, মানিক পুলিশের তালিকাভ‚ক্ত সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে দু’টি অস্ত্র মামলা রয়েছে। তার নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় পরিবারের পক্ষ থেকে জিডি করা হয়েছে। এর ভিত্তিতে তাকে খুঁজে বের করার চেস্টা চালাচ্ছে পুলিশ।ছেলের বিরুদ্ধে থাকা মামলা প্রসঙ্গে মজনু মোল্লা বলেন, মানিকের বিরুদ্ধে দু’টি মিথ্যা মামলা রয়েছে। তবে দুই মামলাতেই তিনি জামিনে রয়েছেন।

বিশেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/ইলিয়াছ

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.