বুধবার ৪ আশ্বিন, ১৪২৫ ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ বুধবার

বর্ষার ‍দিনে খাবারে সতর্কতা

  • অনলাইন ডেস্ক

 

খাবারের ব্যাপারে যদিও সব সময়ই সচেতন থাকতে হয়, তবুও এই বর্ষায় আরও বেশি সতর্ক থাকতে হয়। কারণ, অসহ্য গরম তারপর হঠাৎ করেই ঠান্ডা আবহাওয়া আপনার শরীরকে সব খাবারের সাথে স্যুট না-ও করাতে পারে। এটা থেকে হতে পারে নানা রকম রোগবালাই। এক্ষেত্রে মেনে চলতে পারেন কিছু টিপস—

প্রথমেই রাস্তার ধারে বিক্রি হওয়া খাবারকে না বলুন। কারণ, এতে ধুলা-ময়লা পড়ে সব সময়ই। আর এই খাবার খেলে পেটের অসুখ হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে খুব বেশি। যদি কোনদিন বাসায় খাওয়ার অপশন না থাকে, তাহলে পরিচ্ছন্ন একটি রেস্টুরেন্ট দেখে খেতে বসুন।
অনেক সময় খাবার ঠিকমতো রান্না না করেই খাওয়া হয়। এতে হজমে সমস্যা দেখা দিতে পারে। এছাড়া যদি কাঁচা কোন কিছু (যেমন: শসা, টমোটো) খান তবে তা অবশ্যই ধুয়ে খাবেন। কারণ, অন্য সময়ের চেয়ে বর্ষার পানিতে ময়লা আরও বেশি থাকে। তাই বাসায় এনে পরিষ্কার পানিতে ধূয়ে তারপর খাবেন।
পানির বিশুদ্ধতা নিশ্চিত না করে তা কখনই খাওয়া উচিত নয়। এই সিজনে এ ব্যাপারে আরও সচেতন হতে হবে। তাই পানি খাওয়ার আগে তা ভালোভাবে ফুটিয়ে জীবানুমুক্ত করে খাবেন।
পেটের সমস্যার একটা বড় কারণ থাকে, হাত না ধুয়ে খাওয়া। তাই খাবার আগে ভালোভাবে হাত পরিষ্কার করে নিন। আর ভ্রমনের সময় যদি হাত ধোবার অপশন না থাকে, তবে সাথে হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখুন।
খাবার রান্নায় আদা ব্যবহার করুন। এছাড়া এই সিজনে আদা-চা খাবেন। সম্ভব হলে খাবার পরে একটু কাঁচা আদা চিবিয়ে খাবেন। কারণ, আদা আপনার হজম শক্তিকে বাড়িয়ে দিবে।
বাসি বা গন্ধ ওঠা খাবার খাবেননা একদমই। এতে ডায়রিয়া বা অন্যান্য পেটের সমস্যা দেখা দিতে পারে। আর পেটের সমস্যা দেখা দিলে ওষুধ খাবার পাশাপাশি অন্যান্য খাবার খেতে হবে। নরমাল স্যালাইন, ডাব, চিড়ার স্যালাইন খাবেন এসময়ে।
সর্বোপরি, সচেতন থাকুন এবং পরিচ্ছন্ন খাবার খান। ফেমিনা।

বি.বা/ডেস্ক/ক্যানি

Categories: লাইফস্টাইল

Leave A Reply

Your email address will not be published.