রবিবার ৪ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ রবিবার

ব্যাংকিং খাতের লুটপাট নিয়ে এমপিদের ক্ষোভ

বিশেরবাঁশী ডেস্ক: জাতীয় সংসদ ভবন থেকে: ব্যাংকিং খাতের অব্যবস্থাপনা ও লুটপাট নিয়ে কড়া সমালোচনা করেছেন সংসদ সদস্যরা। ব্যাংক লুটকারী ও অর্থপাচারকারীদের ধরতে না পারায় এবং পাচার করা অর্থ ফেরত আনতে না পারায় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেন তারা। রোববার (১০ জুন) সকালে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে ২০১৭-১৮ অর্থবছরের সম্পূরক বাজেটের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে ব্যাংকিং খাতের অব্যবস্থাপনার সমালোচনা করেন আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক আলী আশরাফ। এরপর আলোচনায় তাল মেলান বিরোধী দল জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশিদ ও স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য রুস্তম আলী ফরাজী। **বিমানবন্দর থেকে কাঞ্চন সেতু পর্যন্ত পাতাল রেল

অধ্যাপক আলী আশরাফ শুরুতে সরকারের বিভিন্ন সাফল্য তুলে ধরে বলেন, আমাদের আবাদী জমি কমেছে, কিন্তু খাদ্য উৎপাদন বেড়েছে। দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পন্ন হয়েছে, এটা অভূতপূর্ব সাফল্য। তাছাড়া অবকাঠামোগত উন্নয়নে অভূতপূর্ব সাফল্য এসেছে। তিনি বলেন, শিক্ষাক্ষেত্রে যুগান্তকারী সাফল্য হয়েছে, এক্ষেত্রে বিরাট বৈপ্লবিক পরিবর্তনও এসেছে। এছাড়া স্বাস্থ্যখাতে বিরাট সাফল্য অর্জন করেছি। সাধারণ মানুষ আজ কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে ৩২ রকমের ওষুধ ফ্রি পাচ্ছে। এখন আমরা টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি। তবে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে কিছু শৈথিল্য আছে। সেগুলা দূর করতে হবে।

ব্যাংকিং খাতের অব্যবস্থাপনা নিয়ে তিনি বলেন, ব্যাংকিং খাতে শৃঙ্খলা আনা দরকার। এই খাতে শৃঙ্খলা আনতে না পারলে দেশের অর্থনীতি ভেঙে পড়বে। কিছু মানুষ ব্যাংকিং খাতে লুটপাট করবে, এটা হতে পারে না। ঋণ খেলাপি হবে, অর্থ পাচার করবে। এই ঋণ খেলাপি, অর্থ পাচারকারীদের আপনি ধরেন।
তিনি আরও বলেন, কর এর আওতা বাড়াতে প্রত্যেক উপজেলায় একটি করে কর অফিস করেন। বিমান চলছে না, বিদেশিরা এসে বিমানে উঠলে মনে করে, যে কোনো সময় ভেঙে পড়বে। সব জায়গায় ভয়াবহ বিশৃঙ্খলা চলছে। এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

বিশেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/ইলিয়াছ

Categories: সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.