বুধবার ৪ আশ্বিন, ১৪২৫ ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ বুধবার

আসছে ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে রেল কারখানায় ৯০ কোচ

বিশেরবাঁশী ডেস্ক: আসছে ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে দেশের বৃহত্তম সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানায় মেরামত হচ্ছে ৯০টি কোচ। ওই কোচ দিয়ে চালু করা হবে দু’টি স্পেশাল ট্রেন। আর বাকিগুলো জুড়ে দেওয়া হবে অতিরিক্ত কোচ হিসেবে বিভিন্ন আন্তঃনগর ট্রেনে। রেলওয়ে সূত্র জানায়, এবার রেলপথে ঈদুল ফিতরে ঘরমুখী যাত্রীদের অধিকতর সুবিধা দিতে রেকর্ড পরিমাণ রেলকোচ মেরামত হচ্ছে। এর মধ্যে সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানাতে মেরামত হচ্ছে ৫৯টি ব্রডগেজ (বড়) ও ৩১টি মিটার গেজ কোচ। তাছাড়াও চট্টগ্রামের পাহাড়তলী রেলওয়ে কারখানায় ৯০টি মিটার গেজ কোচ মেরামত হচ্ছে বলে জানায় সূত্রটি।

বাংলাদেশ রেলওয়ের ওই সূত্র আরও জানায়, শহর পথে দীর্ঘ যানজট ও নানা বিড়ম্বনার কারণে ঈদের ঘরমুখী মানুষেরা চরম ভোগান্তি পোহান। ফলে রেলপথ দিয়ে যাতায়াত বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন তারা। রেলপথ নিরাপদ ও স্বাচ্ছন্দ্যময় হওয়ায় যাত্রী পরিবহনে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ এবার বেশি বেশি স্পেশাল ট্রেন চালানোর পরিকল্পনা নিয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় বেশি সংখ্যক কোচ মেরামতে রেলওয়ে মন্ত্রণালয় লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে।

সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানা সূত্রে জানা যায়, বর্তমানে এ কারখানার লোকবল কম। ৩ হাজার ১৭১ জন লোকবলের বিপরীতে বর্তমানে এখানে কর্মরত আছেন মাত্র ১ হাজার ৮ জন শ্রমিক-কর্মচারী। এতে কারখানার উৎপাদন স্বাভাবিক রাখা কষ্টকর হয়ে পড়েছে। তবুও কারখানার অল্প সংখ্যক লোকবল দিয়েই ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে এখানে ৯০টি কোচ মেরামতে তোরজোর চলছে। শ্রমিক প্রকৌশলীরা স্বতঃস্ফুর্ত ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন কোচ মেরামতে।

ওই সূত্র জানায়, এরই মধ্যে ৪৫টি কোচ মেরামত সম্পন্ন হয়েছে। বাকিগুলো ১২ জুনের মধ্যে পাকশী ও লালমনিরহাট রেল বিভাগকে হস্তান্তর করা হবে। সরেজমিনে দেখা যায়, বিশাল কর্মযজ্ঞ চলছে সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানায়। শ্রমিকরা ঈদের কোচ মেরামত করতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। এ সময় কথা হয় কারখানার ক্যারেজ শপের ইনচার্জ ঊর্ধ্বতন উপ-সহকারী প্রকৌশলী দিলশাদ করিম আবু হেনার সঙ্গে।

আবু হেনা জানান, ঈদের জন্য সমানতালে কাজ চলছে। শ্রমিক প্রকৌশলীরা দৈনন্দিন কাজের অতিরিক্ত ১ ঘণ্টা ওভার টাইম করছে। একইভাবে কারখানার উপ-কারখানাতেও চলছে শ্রমিকদের ব্যস্ততা। রেলওয়ে কারখানার রেজাউল করিম জানান, ঈদে ঘরমুখী মানুষের কথা ভেবে আমরা অতিরিক্ত শ্রম দিচ্ছি। আমাদের তৈরি করা কোচ দিয়ে চলবে বিশেষ ট্রেন, এটা শুনে ভাল লাগছে। তাই কষ্টের হলেও আমাদের কাছে তা আনন্দময় লাগছে।

রেলওয়ের ট্রাফিক বিভাগের সূত্রমতে, ঈদের ৫ দিন আগে বিশেষ ট্রেন সার্ভিস চালু হবে। অন্যান্য নিয়মিত ট্রেনের পাশাপাশি পঞ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে দুই বা ততোধিক ট্রেন সার্ভিসের ব্যবস্থা করা হবে। যা চলবে ১২ দিন পর্যন্ত। এর মধ্যে পঞ্চিমাঞ্চল রেলওয়ে অতিরিক্ত ৫০ হাজার যাত্রী পরিবহন করতে পারবে।

সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানার বিভাগীয় তত্ত্বাবধায়ক (ডিএস) মুহাম্মদ কুদরত-ই খুদা জানান, আমরা উজ্জীবিত। মন্ত্রণালয় আমাদের ওপর যে গুরু দায়িত্ব দিয়েছে, তা বাস্তবায়নে সময় দিচ্ছি আমরা। ঈদে নির্বিঘ্ন রেলযাত্রা নিশ্চিত করতে আমাদের অবদান থাকছে, এটা গর্বের। সীমাবদ্ধতা সত্ত্বেও কোচ মেরামতের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হবে বলে জানান তিনি।

বিশেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/ইলিয়াস

Categories: সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.