মঙ্গলবার ২৯ কার্তিক, ১৪২৫ ১৩ নভেম্বর, ২০১৮ মঙ্গলবার

টিকিটের জন্য কমলাপুরে ভিড়

বিশেরবাঁশী ডেস্ক: ঈদকে সামনে রেখে ঢাকা ছাড়বেন রাজধানীবাসী। নাড়ির টানে পরিবার পরিজন নিয়ে মানুষ ছুটবে ঈদ উদযাপনে- এটাই রীতি। শুরু হবে নাড়ির টানে ঘরে ফেরার সব চেষ্টা। আনন্দের ঈদ যাত্রায় পদে পদে ভোগান্তি, শত বিড়াম্বনা তবুও নানা সমস্যা উপেক্ষা করে ঘরে ফেরাতেই যেন সব আনন্দ-স্বস্তি আর ভালো লাগা। ঈদের সময় যত কাছাকাছি আসছে, নাড়ির টানে বাড়ি ফেরার আকাঙ্ক্ষা তত বাড়ছে। এর সঙ্গে বাড়ছে টিকিটকে হাতের মুঠোয় নিয়ে আসার চেষ্টা। আগাম টিকিটের জন্য রাজধানীর কমলাপুর রেলস্টেশনে ভিড় জমিয়েছেন হাজার হাজার মানুষ।

শনিবার সকালে রাজধানী ঢাকার কমলাপুর রেলস্টেশনে গিয়ে ট্রেনের টিকিটের জন্য যুদ্ধ করতে দেখা গেছে মানুষকে। টিকিট পেতে মধ্যরাত থেকে কাউন্টারগুলোতে জড়ো হয়েছে মানুষ। অতিরিক্ত ভিড়ের কারণে হিমশিম খেতে হচ্ছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে। আজ দেয়া হচ্ছে ১১ জুনের টিকিট। নির্ধারিত সময় সকাল ৮টা থেকে টিকিট বিক্রির কাউন্টার খুলেছে।

এবার ঈদে ছুটি বেশ কম। শনিবার ও রোববার ঈদের ছুটির মধ্যে চলে গেছে। ৩০ রোজা হলে রোববার ঈদ। তাহলে একদিন ছুটি হয়তো বাড়তে পারে। তবে সেই ঝুঁকি নিতে চান না টিকিটপ্রত্যাশীরা। এ জন্য ২৭ রমজান শবে কদরের ছুটিকে কাজে লাগাতে চান ঘরমুখী মানুষেরা। ঈদে ট্রেনের আগাম টিকিট বিক্রি চলবে ৬ জুন পর্যন্ত। কাল রোববার ৩ জুন ১২ জুনের টিকিটের জন্য ভিড় আরও বেশি হবে বলে ধারণা রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের।

এ ছাড়া ৪ জুন ১৩ জুনের, ৫ জুন ১৪ জুনের ও ৬ জুন ১৫ জুনের টিকিট দেয়া হবে। ফিরতি টিকিট ১০ জুন থেকে ছাড়া হবে। রেল কর্তৃপক্ষ জানায়, একজন যাত্রীকে একসঙ্গে সর্বোচ্চ চারটি টিকিট দেয়া হবে। এই টিকিট ফেরত নেয়া হবে না। ঢাকার কমলাপুর রেলস্টেশনে ২৬টি কাউন্টার থেকে টিকিট বিক্রি চলছে। এর মধ্যে দুটি কাউন্টার নারীদের জন্য সংরক্ষিত। কাউন্টারে ভ্যাপসা গরম থাকায় নারীদের দুর্ভোগ বেড়েছে।

মোট টিকিটের ৭৫ শতাংশ কাউন্টারে, আর বাকি ২৫ শতাংশ টিকিট অনলাইনে বিক্রি করা হবে। ১১ জুন থেকে আন্তনগর ট্রেনগুলো সাপ্তাহিক ছুটিতেও চলাচল করবে। উল্লেখ্য, ঈদযাত্রা উপলক্ষে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন থেকে ৩১টি আন্তঃনগর ট্রেনের পাঁচ দিনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি হয়েছে। গতকাল শুক্রবার ১০ জুনের টিকিট দেয়া হয়েছে।

বিশেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/ইলিয়াছ

Categories: সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.