শনিবার ৭ আশ্বিন, ১৪২৫ ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ শনিবার

“প্রধানমন্ত্রীকে হুমকী করায় গিয়াস কাদের চৌধুরী বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা”

বিষেরবাঁশী ডটকম: গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরীপ্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগে মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়া সাকা চৌধুরীর ভাই বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে আজ বৃহস্পতিবার চট্টগ্রামের আদালতে তিনটি মামলা হয়েছে। একটি মামলায় তাঁর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

চট্টগ্রামের বিচারিক হাকিম আদালতে একটি মামলা করেন ফটিকছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র, হত্যার হুমকি ও মানহানিকর বক্তব্য দেওয়ায় নাজিম উদ্দিন মামলাটি করেন। চট্টগ্রামের অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম আ স ম শহীদুল্লাহ কায়সার অভিযোগ আমলে নিয়ে গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

আজ নগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম ও রাঙ্গুনিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. নুরুল আলম বিচারিক হাকিম আল ইমরানের আদালতে পৃথক দুটি মামলা করেন। এ আদালত পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে নুরুল আজিমের অভিযোগটি এজাহার হিসেবে গণ্য করার নির্দেশ দেন। নুরুল আলমের মামলায় গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরীকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন।

প্রথম দুটি মামলার আইনজীবী শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী প্রথম আলোকে বলেন, গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে ফটিকছড়ি আওয়ামী লীগ নেতা নাজিম উদ্দিন এবং নগর ছাত্রলীগের সাবেক নেতা নুরুল আজিম পৃথক দুটি মামলা করেন। একটি মামলায় গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়েছে। অন্যটি পাঁচলাইশ থানায় নথিভুক্ত করতে বলা হয়েছে।

রাঙ্গুনিয়া ছাত্রলীগ নেতা নুরুল আলমের আইনজীবী নিখিল কুমার নাথ বলেন, আদালত অভিযোগটি আমলে নিয়ে গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরীকে আগামী ২৮ জুন আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন।

একটি মামলার বাদী নুরুল আজিম প্রথম আলোকে বলেন, যুদ্ধাপরাধী পরিবারের সদস্য হিসেবে গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরী ট্রাইব্যুনালের রায় কার্যকরের কারণে প্রতিশোধ নিতে মরিয়া। যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালে তাঁর বড় ভাই সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ফাঁসি হয়। এ জন্য শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে পরিবারটি। তার অংশ হিসেবে ফটিকছড়িতে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে উসকানিমূলক বক্তব্য দিয়েছেন তিনি।

গত মঙ্গলবার চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে বিএনপির একটি ইফতার মাহফিলে গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্পর্কে কটূক্তি করেছিলেন বলে অভিযোগ ওঠে। এ কারণে গতকাল বুধবার সন্ধ্যার পর চট্টগ্রাম নগরের গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরীর পৈতৃক বাড়ি গুডস হিলে হামলার ঘটনা ঘটে। চট্টগ্রাম উত্তর ও দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের কিছু নেতা-কর্মী এ হামলা চালিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

বিএনপি নেতা গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরী এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘ফটিকছড়ির ইফতার মাহফিলে অংশ নিয়েছিলাম। কিন্তু সেখানে নাকি বিস্ফোরক ছিল। প্রধানমন্ত্রীকেও নাকি আমি হুমকি দিয়েছি। কিন্তু কোনো অভিযোগ সত্য নয়। এর জের ধরে আমাদের গুডস হিলের বাড়িতে ব্যাপক ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। এতে কোটি টাকার সম্পদ নষ্ট হয়েছে। বাড়িতে ভাঙচুরের ঘটনার খারাপ দৃষ্টান্ত।’

এক প্রশ্নের জবাবে গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরী বলেন, ‘হামলাকারীরা স্বেচ্ছায় সব স্বীকার করেছে বলে বিভিন্ন গণমাধ্যম থেকে জানতে পেরেছি। এরপরও আমাদের দিক থেকে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

www.facebook.com/subash.saha2/videos/1743127425778465/

 

Categories: Uncategorized,সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.