বৃহস্পতিবার ১ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ ১৫ নভেম্বর, ২০১৮ বৃহস্পতিবার

মধ্যরাতে ইলিয়াসের বাসায় কারা?

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: বিএনপির নিখোঁজ নেতা এম ইলিয়াস আলীর বনানীর বাসায় মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পরিচয়ে তল্লাশির নামে অজ্ঞত কয়েকজন ‘হানা’ দিয়ে ভীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সোমবার দিনগত রাত পৌনে তিনটা থেকে সাড়ে চারটা পর্যন্ত কয়েক দফা এ চেষ্টা করা হয় বলে দাবি করেছেন ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদির লুনা। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অন্যদিকে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) পক্ষ থেকে গতকাল বলা হয়, সোমবার রাতে এম ইলিয়াস আলীর বনানীর বাসায় ডিবি বা বনানী থানা পুলিশ কোনো অভিযান চালায়নি। কারা ওই বাসায় গিয়েছিলেন তা-ও জানেন না তারা। ফলে বিষয়টি নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠেছে। ডিবি পরিচয়ে গভীর রাতে কারা গিয়েছিল ইলিয়াসের বাসায়? কী ছিল তাদের উদ্দেশ্য?
এ প্রসঙ্গে রুহুল কবির রিজভী বলেন, বিরোধী দলের মধ্যে ভীতিকর পরিস্থিতি তৈরির জন্যই এ ঘটনা ঘটানো হয়েছে। আমি সরকারি সাধারণ পোশাকধারী বাহিনীর এ ধরনের ভূমিকার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। গতকাল নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।
রিজভী জানান, রাতে বিএনপি নেতা নিখোঁজ ইলিয়াস আলীর বনানীর বাসায় তার অসুস্থ স্ত্রীকে দরজা খোলার জন্য বলে ‘ডিবি পুলিশ’। এ সময় ‘ডিবি সদস্যরা’ দরজা ধাক্কাধাক্কি করলে ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদির লুনা আতঙ্কিত হয়ে তাকেসহ (রিজভী) বিএনপি নেতাদের ফোনে আকুতি জানান।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাতে ইলিয়াস আলীর বনানীর ন্যাম ভিলেজের সিলেট হাউসে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ‘ঝুনু’ নামে এক ব্যক্তিকে খুঁজতে আসে অজ্ঞাত কয়েকজন। এ সময় নিরাপত্তা প্রহরীরা বাসায় প্রবেশে নিষেধ করলে জোরাজুরি করে তারা। এই নিয়ে অজ্ঞাত ব্যক্তিদের সঙ্গে নিরাপত্তা প্রহরীর কথা কাটাকাটি হয়। তারা অনবরত কলিং বেল টিপে। গেট না খুললে কয়েক দফা এসে ‘ডিবি’র লোকেরা গেট ভাঙার চেষ্টা করে। ঘটনা আঁচ করতে পেরে ইলয়াসপতœী চিৎকার শুরু করলে ফটকের বাইরে অবস্থান নেন ‘ডিবি’র সদস্যরা।

তাহসিনা রুশদির লুনা বলেন, রাত সাড়ে ৩টার কিছু আগে ‘ডিবি পুলিশ’-এর একটি দল আমাদের বাসার সামনে অবস্থান নেয়। তারা বাড়ির গেট খুলতে বললেও আমরা গেট খুলিনি। তারা জোর করে প্রবেশ করতে চাইলে আমরা চিৎকার করি। এ সময় তারা বাড়ির বাইরে অবস্থান নেয়। এরপর সাধারণ পোশাকের একদল লোক এসে নিজেদের গোয়েন্দা পুলিশ পরিচয় দেন। তারাও বাড়ির দরজা খুলে দিতে বলেন; কিন্তু পরিচয় নিশ্চিত না হওয়ায় গেট খোলা হয়নি। বাড়ির সামনে ‘ডিবি পুলিশ’ অবস্থানের খবর শুনে গণমাধ্যমকর্মীরা আসেন। তাদের দেখে রাত সাড়ে ৪টার দিকে গোয়েন্দা পুলিশের সদস্যরা বাড়ির সামনে থেকে সরে যান।
তাহসিনা জানান, প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে ‘ডিবির’ লোকরা কয়েক দফায় বাসায় ঢোকার চেষ্টা করে। এ সময় তিনি বনানী থানাপুলিশকে খবর দেন; কিন্তু ঘটনাস্থলে পুলিশ আসার আগেই অজ্ঞাত ব্যক্তিরা পালিয়ে যায়।
ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) জনসংযোগ শাখার উপ-কমিশনার (ডিসি) মাসুদুর রহমান বলেন, গতকাল রাতে বনানীর ওই বাসায় ডিবি পুলিশের কোনো দল গিয়েছিল বলে আমার জানা নেই।

বনানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিএম ফরমান আলী বলেন, ইলিয়াসপতœীর ফোন পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। রাতে কারা ওই বাড়িতে গিয়েছিল, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল রাতে নিজ বাসায় ফেরার পথে ঢাকার মহাখালী থেকে নিখোঁজ হন বিএনপির সাবেক কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক, সিলেট জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য এম ইলিয়াস আলী এবং তার গাড়িচালক আনসার আলী। মধ্যরাতে মহাখালী এলাকা থেকে ইলিয়াস আলীর গাড়িটি উদ্ধার করে পুলিশ। সেই থেকে এখন পর্যন্ত ইলিয়াস আলী নিখোঁজের কারণ রহস্যাবৃত্তই রয়ে গেছে।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: রাজনীতি

Leave A Reply

Your email address will not be published.