রবিবার ৮ আশ্বিন, ১৪২৫ ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রবিবার

অশ্লীল পোষ্টারে নষ্ট হচ্ছে রমজানের পবিত্রতা!

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: বাংলা চলচ্চিত্রের অশ্লীল পোষ্টারে ছেঁয়ে গেছে নারায়ণগঞ্জের পথ-ঘাট। চলমান মাহে রমজানের পবিত্রতা রক্ষায় নগরীর বিভিন্ন স্থানে লাগানো এসব অশ্লীল পোষ্টার অপসারনের দাবী জানিয়েছেন ধর্মপরায়ণ নারায়ণগঞ্জবাসী। অন্যথায় সকলকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার কথা জানিয়েছেন তারা।

সরেজমিনে শুক্রবার (১৮ মে) বাদ জুম্মা নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে দেখা গেছে, নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন সিনেমা হলে প্রদর্শিত বাংলা সিনেমার অশ্লীল পোষ্টার নগরীর বিভিন্ন দেয়ালে সাঁটানো রয়েছে। চাষাঢ়া থেকে সিদ্ধিরগঞ্জ হয়ে চিটাগাং রোড এবং সাইনবোর্ড হয়ে চিটাগাং রোড-উভয় রুটের দেয়ালগুলো ভরে ফেলা হয়েছে এসব অশ্লীল পোষ্টার দিয়ে। এসব পোষ্টারে বাংলা সিনেমার বেঢপ নায়িকাদের অর্ধনগ্ন ছবি দিয়ে দর্শক আকর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। পোষ্টারের ছবিগুলো এতোই অশ্লীল যে, পরিবার পরিজন নিয়ে রাস্তায় বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পরতে হয় পথ চলতি সাধারণ মানুষকে। তাছাড়া চলমান্ন রমজান মাসে এসব অশ্লীল পোষ্টার দেয়ালে সাঁটানো থাকলে রমজানের পবিত্রতা নষ্ট হবে বলে মনে করেন নারায়ণগঞ্জের সচেতন মহল। তাই অবিলম্বে এসব অশ্লীল পোষ্টার অপসারন করে এর সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের আহবান জানিয়েছেন তারা। এ নিয়ে নারায়ণগঞ্জের সংবাদ মাধ্যমে বহু খবর প্রচার হলেও এ থেকে পরিত্রাণ লাভ সম্ভব হয়নি বলে এ বিষয়ে প্রশাসনের নীরবতাকে রহস্যজনক মনে করছেন তারা।

জুম্মার নামাজ শেষে মসজিদ বের হয়ে জনৈক মুসুল্লি এসব অশ্লীল পোষ্টার দেখে ক্ষোভের সঙ্গে বলেন, একটি মুসলিম দেশে কি করে এসব পোষ্টার লাগানো হয় তা আমার বোধগম্য হয় না। পোষ্টারের অশ্লীলতা দেখে অনুমান করতে কষ্ট হয় না, এসব চলচ্চিত্রগুলো কি পরিমান অশ্লীল হবে। অচিরেই এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

এ সময় অপর এক মুসুল্লি বলেন, সিনেমা হলের চার দেয়ালের ভিতরে অশ্লীলতা হয় জানি। তাই সিনেমা হলে যাইনা। সেখানে তো অল্প কয়েকজন অমানুষ এই অশ্লীলতা উপভোগ করে। কিন্তু শহর জুড়ে এসব অশ্লীল পোষ্টারের কারনে এই অশ্লীলতা পুরো শহরে ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। আমরা পরিবার নিয়ে রাস্তায় বের হলে এসব পোষ্টারের কারনে বিব্রত হতে হয়। দিনের পর দিন এসব অপকর্ম চলে আসলেও কার্যকর কোন পদক্ষেপ নজরে পরলো না। বরং যত দিন যাচ্ছে এর মাত্রা ততই বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমারতো মনে হয় এসবের সাথে প্রশাসনের কিছু অসাধু লোক জড়িত। তাই প্রশাসন কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না। সবার আগে প্রশাসনের এসব দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের আইনের আওতায় এনে কঠোর বিচারের মুখোমুখি করা উচিত। তাহলে এসব যারা করে তারা ভয়ে আর এ পথে আসবে না।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/ইলিয়াচ

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.