বৃহস্পতিবার ৫ আশ্বিন, ১৪২৫ ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ বৃহস্পতিবার

কাউকে কোন ছাড় দেয়া হবে না: পুলিশ সুপার

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: পুলিশ সুপার মঈনুল হক বলেছেন, আইন প্রয়োগের ক্ষেত্রে কঠোর থাকবে জেলা পুলিশ। জনগণের সেবা করাই আমাদের কাজ। জনগণের সেবার নিশ্চিত করতে পারলে সকলেই সেবা পাবে। কাউকে কোন ছাড় দেয়া হবে না। সুতরাং আপনারা কেউ কষ্ট পাইয়েন না, আমাদেরকেও কষ্ট দিয়েন না। আর এজন্যই আপনাদের নিয়ে মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়েছে।
সোমবার (১৪ মে) সকালে জেলা পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে বাস, ট্রাক, ট্যাংলরি ও কাভার্ডভ্যান মালিক এবং শ্রমিক নেতাদের নিয়ে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, আপনারা ব্যবসা করেন, আপনাদের ব্যবসায় সহযোগিতা করাও আমাদের কাজ। যেন নিরাপদে ব্যবসা করতে পারেন সে জন্যই আমাদেরকে এখানে আনা হয়েছে। কিন্তু ব্যবসা করতে গিয়ে যেন মানুষের ভোগান্তি সৃষ্টি না হয় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। সব ঠিক আছে, শুধুমাত্র যানজটের কারণে গালমন্দ শুনতে হবে এটাতো হতে পারে না। তাই আপনারা নিয়মকানুন মেনেই গাড়ি চালান। আপনাদের সাথে সু-সম্পর্ক বজায় রাখতে চাই। পাশাপাশি জনসাধারণ স্বস্তিতে থাকুক, এটাও আমরা চাই।<
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো: মোস্তাফিজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো: মতিয়ার রহমান ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মো: ফারুক হোসেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা ট্রাক ট্যাংকলরি কাভার্ডভ্যান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো: সফিউদ্দিন প্রধান, বন্ধন বাস মালিক সমিতির সভাপতি আইয়ুব আলীসহ বিভিন্ন মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ।
সভায় নারায়ণগঞ্জে অর্থনৈতিকভাবে একটি সমৃদ্ধ, সচেতন ও ক্ষমতায়িত সমাজ গড়ার অংশ হিসেবে ৩৫ কোটি টাকা ব্যয়ে নারীর ব্যবসা বাণিজ্যের এবং অন্যান্য সুবিধা-সম্বলিত একটি বহুমুখী নারী কমপ্লেক্স এবং ১০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে প্রতি ওয়ার্ডে একটি করে সিটি ডিজিটাল সেন্টার প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব করা হয়েছে। ব্র্যাক ইন্সটিটিউট অফ্ গর্ভন্যান্স অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (বিআইজিডি) ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের আয়োজনে ব্রাসেলস্-ভিত্তিক সিটিজ্ এ্যালায়েন্স এর কারিগরি সহযোগিতায় ব্রিটিশ আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা (ইউকেএআইডি) এর অর্থায়নে বাস্তবায়ন করে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন।
সভায় জানানো হয়, নারীদের জন্য কমপ্লেক্স নির্মাণ, পরিচালনা এবং রক্ষণাবেক্ষণ ব্যয় হবে ৩ কোটি ৭৫ লাখ ৫৬৪ টাকা। এর নির্মাণের জন্য অর্থায়নের উৎস নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ৩০ ভাগ ও সরকারের ৭০ ভাগ।
বিআইজিডির গবেষণা ফেলো ড. শাহনেওয়াজ হোসেনের সভাপতিত্বে কর্মশালার অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিটিজ্ এ্যালায়েন্স এর এশিয়া আঞ্চলিক উপদেষ্টা ধিরাজ অজয় সুরী এবং পরামর্শক ড. কে. রাজিভান, বিআইজিডির জ্যেষ্ঠ গবেষণা সহযোগী মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী এএফএম এহতেশামূল হক, নগর পরিকল্পনাবিদ মইনুল ইসলাম, জেলা নারী বিষয়ক কর্মকর্তা কামিজা ইয়াসমীন, কাউন্সিলর অসিত বরণ বিশ্বাস, সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব রাফিউর রাব্বী, অ্যাডভোকেট এ বি সিদ্দিক, পরিবেশকর্মী আব্দুর রহমান, নারীনেত্রী মরিয়ম কল্পনা, তথ্য প্রযুক্তি উদ্যোক্তা হাদিউজ্জামান গালীব প্রমুখ।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.