বুধবার ৩০ কার্তিক, ১৪২৫ ১৪ নভেম্বর, ২০১৮ বুধবার

যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে রড দিয়ে পিটিয়ে নির্যাতন

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: ময়মনসিংহ সদরের শম্ভুগঞ্জ এলাকায় যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্বপ্না আক্তার (২৫) নামে এক গৃহবধূকে রড দিয়ে পিটিয়ে ক্ষত  চিহ্নে মরিচের গুড়া দিয়ে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে স্বামী সিএনজি অটোচালক অলি উল্লাহর বিরুদ্ধে। ওই গৃহবধূকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ক্যাজুয়াল ওয়ার্ডে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। শনিবার (১৪ এপ্রিল) রাতে শম্ভুগঞ্জের নিজ বাসায় এই ঘটনা ঘটে।এই ঘটনায় কোতোয়ালি মডেল থানায় একটি অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। ঘটনার পর থেকে নির্যাতনকারী স্বামী অলি উল্লাহ পলাতক আছেন।
স্বপ্না আক্তারের ভাই লিটন মিয়া জানান, গত ৩ বছর আগে ময়মনসিংহ সদরের চরকালিবাড়ি এলাকার তার বোন স্বপ্না আক্তারের সঙ্গে মোজাহারদি গ্রামের অলি উল্লাহর সঙ্গে বিয়ে হয়। বিয়ের সময় অলি ৫০ হাজার টাকা যৌতুক নেন। বিয়ের মাস খানেক পরে যৌতুকের আরও টাকার জন্য তার বোনের ওপর নির্যাতন শুরু করেন তার স্বামী অলি। এরপর বিভিন্ন সময়ে দফায় দফায় যৌতুক বাবদ আরও ৫০ হাজার টাকা দেওযা হয় তাকে।
লিটন আরও জানান, গত এক মাস আগে বোনের ওপর আবারও নির্যাতন শুরু হলে তার স্বামীকে আরও ২০ হাজার টাকা দেওয়া হয়। এরপরও থামেনি যৌতুকের লোভে টাকার জন্য স্ত্রীর ওপর নির্যাতন। শনিবার রাতে অটো চালিয়ে বাসায় এসে বাপের বাড়ি থেকে যৌতুকের টাকা এনে দেওয়ার জন্য চাপ দিলে তাদের দুজনের মধ্যে ঝগড়া হয়। এরই জেরে রড দিয়ে তার বোনকে বেধড়ক পিটিয়ে আহত করা হয়। খবর পেয়ে তারা রাতেই স্বপ্নাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন।
স্বপ্না আক্তার জানান, বিয়ের মাস খানেক যাওয়ার পরই বাপের বাড়ি থেকে টাকা এনে দেওয়ার জন্য তার স্বামী তাকে মারধর করতো। প্রথম নির্যাতনের বিষয়টি কাউকে জা নায়নি, কিন্তু টাকার জন্য বেপরোয়া হলে বিষয়টি জানাতে বাধ্য হন তিনি।কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম জানান, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ থানায় দাখিল করা হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত অনুযায়ী প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার হবে।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/মিতু

Categories: সারাদেশ

Leave A Reply

Your email address will not be published.