বুধবার ৩০ কার্তিক, ১৪২৫ ১৪ নভেম্বর, ২০১৮ বুধবার

রানা প্লাজার মালিকের মায়ের ৬ বছরের কারাদণ্ড

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন করায় দুদকের করা মামলায় রানা প্লাজার মালিক সোহেল রানার মা মর্জিনা বেগমকে ছয় বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও অবৈধ সম্পদ বাজেয়াপ্রাপ্ত করারও আদেশ দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৬ এর বিচারক কে এম নুরুল কায়েস এ রায় দেন।

জ্ঞাত আয় বহির্ভূত ৮ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে তার বিরুদ্ধে ২০১৫ সালের ১২ এপ্রিল মামলা দায়ের করেন দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) উপপরিচালক মাহবুবুল আলম। মামলা নং ২৫২/১৬ ।

২০১৬ সালের ২৯ আগস্ট তার বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়। আদালত গেল বছরের ২৮ আগস্ট মর্জিনার বিরুদ্ধে বিচার শুরু করেন। দুদকের পক্ষ থেকে আটজন সাক্ষীকে আদালতে হাজির করা হয়।

নির্মাণ ত্রুটির কারণে ২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল সাভারের রানা প্লাজায় ভয়াবহ ধসের ঘটনা ঘটে। রানা প্লাজা ধসের ঘটনায় ১ হাজার ১৭৫ জন প্রাণ হারান। অনেকে আহত হন। হতাহত হওয়া ব্যক্তিদের বেশির ভাগই পোশাকশ্রমিক। ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় ওই বছরের ২৯ এপ্রিল বেনাপোল থেকে সোহেল রানাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। এরপর থেকে তিনি কারাগারে আছেন।

সোহেল রানা ওরফে রানাসহ তার পরিবারের বিভিন্ন ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে দুদক ও রাজউকসহ সাভার ও ধামরাই থানায় ৭টি মামলা দায়ের করে।

এদিকে ২০১৭ সালের ২৯ আগস্ট দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) সম্পদের হিসাব দাখিল না করায় সাভারের ধসে পড়া রানা প্লাজার মালিক সোহেল রানাকে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও তিন মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

সোহেল রানার বিরুদ্ধে আরও পাঁচটি মামলা বিচারাধীন রয়েছে। বর্তমানে এসব মামলায় তিনি কারাগারে রয়েছেন।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/মিতু

Categories: আইন-আদালত

Leave A Reply

Your email address will not be published.