বুধবার ৩০ কার্তিক, ১৪২৫ ১৪ নভেম্বর, ২০১৮ বুধবার

মাদারীপুরে চায়ের দোকানেও বইছে ভোটের হাওয়া

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: দিনক্ষণ নির্ধারিত না হলেও এরই মধ্যে একাদশ জাতীয় নির্বাচনের হাওয়া বইছে মাদারীপুরের বিভিন্ন চায়ের দোকানে। চা পান করার ফাঁকে আলোচনা একটাই আগামী একাদশ নির্বাচন কেমন হবে। কে হবে আমাদের মনোনিত প্রার্থী। মাদারীপুরে সংসদীয় আসন ২১৮, ২১৯ ও ২২০ নম্বর আসনে। এরই মধ্যে সম্ভাব্য প্রার্থীরা নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করে দিয়েছেন।
আওয়ামী লীগ:- তিনটি সংসদীয় আসনের মাদারীপুর জেলায় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক অবস্থা অত্যন্ত সুসংহত। জেলায় আওয়ামী লীগের প্রায় সব প্রার্থীই অপেক্ষাকৃত প্রবীণ। বিপরীতে বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থীরা তরুণ। তবে জাতীয় পার্টি, জামায়াতে ইসলামীসহ ইসলামী দলগুলোর কিছু ভোটব্যাংক রয়েছে। সে তুলনায় বাম দলগুলো সক্রিয় নয়। ১৯৮৮ থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত মাদারীপুরের তিনটি আসনই আওয়ামী লীগের দখলে। পৌরসভাসহ শিবচর উপজেলার ১৯টি ইউনিয়ন নিয়ে মাদারীপুর-১ সংসদীয় আসন গঠিত। এ আসনে ভোটারসংখ্যা দুই লাখ ১৭ হাজার ৮২৫ জন।
মাদারীপুর-১ (শিবচর) আসনে বর্তমানে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য একক প্রার্থী নূর ই আলম চৌধুরী লিটন। তিনি টানা পাঁচবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। সর্বশেষ ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত দশম সংসদ নির্বাচনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় তিনি নির্বাচিত হন। একাদশ জাতীয় নির্বাচনেও তিনি এই দলের একক প্রার্থী হিসেবে নেতা-কর্মীদের মুখে মুখে। এলাকার উন্নয়নেও ব্যাপক ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন। এ আসনে বিএনপির বেশ কয়েকজন সম্ভাব্য প্রার্থী রয়েছে। এদের মাঝে মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে রয়েছেন শিবচর উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ইয়াজ্জেম হোসেন রোমান, বিএনপিনেতা কামাল জামান নূরুউদ্দিন মোল্লাও শক্তিশালী প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন। নির্বাচনী মাঠে আরো রয়েছেন কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সহ-সভাপতি আবদুল হান্নান মিয়া ও বিএনপিনেতা সাজ্জাদ হোসেন লাভলু সিদ্দিকী।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/মিতু

Categories: নারায়ণগঞ্জের খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.