রবিবার ৮ আশ্বিন, ১৪২৫ ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ রবিবার

জাপানে সেলিম ওসমানের নেতৃত্বে বাংলাদেশকে উপস্থাপন করবে নীট ব্যবসায়ীরা

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: ফ্যাশন ওয়ার্ড টোকিও-২০১৮ মেলায় বাংলাদেশের নীট শিল্পকে উপস্থাপন করতে বিকেএমইএ এর নেতৃত্বে মোট ৮৫জন ব্যবসায়ীর একটি দল মেলায় অংশ গ্রহন করতে যাচ্ছে। আগামী ৪ থেকে ৬ এপ্রিল জাপানের টোকিওতে এ ফ্যাশন মেলা অনুষ্ঠিত হবে। মেলায় অংশ গ্রহনের মধ্য দিয়ে জাপানে বাংলাদেশের নীটওয়্যার পণ্যের বাজার সম্প্রসারন হবে বলে প্রত্যাশা করছেন দেশের নীট ব্যবসায়ীরা।

সোমবার ১৯ মার্চ সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় ঢাকার গুলশানে ওয়েস্টিন হোটেলে বিকেএমইএ এর উদ্যোগে মেলায় অংশ গ্রহনকারীদের প্রস্তুতি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বিকেএমইএ এর সভাপতি ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভাটি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সেলিম ওসমান বক্তব্যে, মেলায় অংশগ্রহন করতে যাওয়া বিকেএমইএ পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দ সহ নীটওয়্যার ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে জাপানে বাংলাদেশের নীটওয়্যার পণ্যের বাজার সম্প্রসারনে করনী সম্পর্কে দিক নির্দেশনা সহ বিস্তারিত আলোচনা করেন। এ সময় তিনি জাপানী বায়ারদেরকে আকৃষ্ট করার ব্যাপারে সব থেকে বেশি গুরুত্ব দেন।

২০১৭ সালে জাপান বিশ্বের অন্যান্য দেশ গুলো থেকে ১২ দশমিক ৯ বিলিয়ন ডলারের নীটওয়্যার পন্য আমদানী করে থাকে। আর বাংলাদেশ থেকে শুধুমাত্র ৪ দশমিক ৪৩ মিলিয়ন ডলারের নীটওয়্যার পন্য আমদানী করেছে। সেই হিসেবে জাপানে বাংলাদেশী নীটওয়্যার পণ্যের বাজার সৃষ্টি করার ব্যাপক সম্ভাবনা রয়েছে বলে মনে করছেন নীটপন্য রপ্তানিকারকরা।

প্রসঙ্গত ২০১২ সালে বিকেএমইএ তৎকালীন এবং বর্তমান সভাপতি সেলিম ওসমানের নেতৃত্বে ১১০ জনের একটি ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দল ফ্যাশন ওয়ার্ড টোকিও-২০১২ ফেয়ারে অংশ নিয়ে ছিলো বাংলাদেশ। ওই মেলায় অংশ গ্রহনের গত কয়েক বছরে জাপানে বাংলাদেশী নীটওয়্যার পণ্যের রপ্তানি বেড়েছে ১০০ গুনের বেশি। এছাড়া বর্তমানে জাপানে বাংলাদেশী নীটওয়্যার পন্য রপ্তানিতে শুল্কমুক্ত সুবিধা প্রদান করার ঘোষণা দিয়েছেন। এতে করে বাংলাদেশ থেকে যতটুকু সম্ভব স্বল্পমূল্যে জাপানে নীটপন্য রপ্তানি করতে পারবে বাংলাদেশ। এতে করে ভবিষ্যতে বাংলাদেশের সামনে জাপানে বাজার সৃষ্টি অপার সম্ভবনা দ্বার উন্মোচন হতে যাচ্ছে।

মত বিনিময় সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, বিকেএমইএ এর প্রথম সহসভাপতি মনসুর আহম্মেদ, দ্বিতীয় সহ সভাপতি ফজলে শামীম এহসান, পরিচালক শেখ হোসেইন মোহাম্মদ মোস্তাফিজ, পরিচালক মহিবুর রহমান, শামীম আহম্মেদ, উইজডম অ্যাটায়ার্স লিমিটেড এর নির্বাহী পরিচালক আক্তার হোসেন অপূর্ব, আল-আমিন এক্সপোর্ট লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাকারিয়া ওয়াহিদ, ইউএসবি ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেড এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক বিপ্লব হোসেন হাওলাদার, বাবুল হোসেন জনি, সাইফুল ইসলাম, মাহাবুর রহমান স্বপন, রতন কুমার সাহা, দিলীপ কুমার সাহা, দেওয়ান মোহাম্মদ ইসমাইল, সাইদুর রহমান, হারুন অর রশিদ, আশিকুর রহমান, বেলায়েত হোসেন মহিবুর রহমান সহ অন্যান্য পরিচালক এবং রপ্তানিকারী প্রতিষ্ঠানে উদ্যোক্তাগন।

বিষেরবাঁশী.কম/ প্রেস বিজ্ঞপ্তি / হীরা

Categories: অর্থনীতি

Leave A Reply

Your email address will not be published.