সোমবার ৬ ভাদ্র, ১৪২৪ ২১ আগস্ট, ২০১৭ সোমবার

বনশ্রীতে গৃহকর্মীর মৃত্যু ঘটনায় ২ মামলা

বিষেরবাঁশী ডেস্ক: রাজধানীর বনশ্রীর একটি বাসায় গৃহকর্মী লাইলী আক্তারের (২৫) রহস্যজনক মৃত্যু এবং একে কেন্দ্র করে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনায় দুটি মামলা করা হয়েছে। খিলগাঁও থানার ডিউটি অফিসার এসআই মনসুর আহমেদ এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, শুক্রবার রাতে মামলা দুটি করা হয়। এর মধ্যে একটি হত্যা মামলা এবং অপর মামলাটি করা হয়েছে হামলা-ভাঙচুরের ঘটনায়।

এসআই মনসুর আরও জানান, নিহত লাইলীর এক স্বজন শরিফুল ইসলামের করা হত্যা মামলায় বনশ্রীর ওই বাড়ির গৃহকর্তা মঈন উদ্দিন ও বাড়ির তত্ত্বাবধায়ক টিপুসহ পাঁচ-ছয় জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলায় মঈন উদ্দিন ও টিপুকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

বনশ্রীর ‘জি’ ব্লকের চার নম্বর সড়কের ১৪ নম্বর বাড়ির মালিক সাবেক কাস্টমস কর্মকর্তা ও বর্তমানে নাসির গ্রুপের উপদেষ্টা মঈন উদ্দিনের বাসায় গৃহকর্মীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় লাইলীকে হত্যার অভিযোগ এনে স্থানীয় তিনটি বস্তির বাসিন্দা ও নিহতের স্বজনরা গৃহকর্তা মঈন উদ্দিনের বাসায় হামলা ও ভাংচুর করে। তারা একটি গাড়িতে আগুন ও আরেকটি পিকআপ ভাংচুর করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ রাবার বুলেট ও টিয়ার গ্যাসের শেল ছোড়ে।

স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশের সঙ্গে দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষে এক পর্যায়ে ওই এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। এ ঘটনায় পুলিশের মতিঝিল বিভাগের এডিসি সাইফুল ইসলাম, খিলগাঁও থানার ওসি মাইনুল ইসলামসহ অর্ধশত আহত হন। গৃহকর্তা মাঈন উদ্দিনের দাবি, শুক্রবার সকালে কাজ করতে এসে লাইলী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। তবে লাইলীর স্বজনদের অভিযোগ, লাইলীকে হত্যার পর আত্মহত্যার গল্প সাজানো হয়েছে।

বিষেরবাঁশী ডেস্ক/সংবাদদাতা/হৃদয়

Categories: অপরাধ ও দুর্নীতি

Leave A Reply

Your email address will not be published.